Tags » Online Newspaper

Your Opinions Please: #Paperli

Purpose of Website: Paper.li is a free, online newspaper that allows users to create and share their own newspaper with others. This newspaper is usually a collection of blog and news articles. 142 more words

Learning

বিজয় দিবসে আসছে ‘একাত্তরের ক্ষুদিরাম’

মুক্তিযুদ্ধের পটভূমিতে নির্মিত পূর্ণদৈর্ঘ্য শিশুতোষ চলচ্চিত্র ‘একাত্তরের ক্ষুদিরাম’ সম্প্রতি সেন্সর বোর্ডে জমা পড়েছে। ছাড়পত্র পেলে সরকারি অনুদানে নির্মিত সিনেমাটি বিজয় দিবসে মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা করছেন নির্মাতা মান্নান হীরা

মান্নান হীরা গ্লিটজকে বলেন, “আশা করছি সিনেমাটি খুব শিগগিরই সেন্সর ছাড়পত্র পেয়ে যাবে। ছাড়পত্র পেলে আমরা ডিসেম্বরের শেষের দিকে সিনেমাটি মুক্তি দেব।”

মুক্তিযুদ্ধে শিশু-কিশোরদের অবদান নিয়ে আবর্তিত হয়েছে সিনেমাটির গল্প। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে একটি গ্রামের কাহিনি ফুটে উঠেছে এই সিনেমাতে। সোনামুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক খোকন ব্যানার্জী পাকিস্তানি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে ‘শহীদ ক্ষুদিরাম’ নামে একটি নাটক মঞ্চায়ন করেন। এর পরই দৃশ্যপট পাল্টে যায়।

সিনেমাতে স্কুলছাত্র আলালের চরিত্রে অভিনয় করেছে স্বচ্ছ। খোকন ব্যানার্জীর চরিত্রে ফজলুর রহমান বাবু, প্রধান শিক্ষকের চরিত্রে মামুনুর রশীদ ও স্বচ্ছর মায়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন মোমেনা চৌধুরী। অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইনামুল হক, ছবি, ফিরোজ আল মামুন, সাজু। এছাড়াও শিশুশিল্পী রুদ্র, শাকিল, অন্তরা, মধু মনি, মুন্না, জুয়েল ও মিজি অভিনয় করেছে এ সিনেমায়।
মঞ্চ ও টেলিভিশনে নির্দেশনা দেওয়ার পর চলচ্চিত্র নির্মাণে আসা মান্নান হীরা বলেন, “আমার দীর্ঘদিনের একটা স্বপ্ন ছিল মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক পূর্ণদৈর্ঘ্য সিনেমা বানাব। আমার সেই স্বপ্ন পূরণ হতে যাচ্ছে। আমাদের মুক্তিযুদ্ধে যে নানা ধরনের, নানা বয়সের মানুষের অংশগ্রহণ ছিল তারই প্রতিফলন দেখা যাবে এ চলচ্চিত্রে।”

মান্নান হীরা জানালেন, সিনেমার জন্য প্রাপ্ত সরকারি অনুদানের অর্থ ছিল ‘নিতান্ত অপ্রতুল’। এত স্বল্প পরিমাণ বাজেট দিয়ে একটি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ ‘সম্ভব নয়’ বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

এছাড়াও সরকারি অনুদানে নির্মিত ও মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সিনেমাগুলো হলমালিকরা প্রদর্শন করতে চায় না বলে অভিযোগ করেন তিনি।

“সরকারি অনুদানে নির্মিত সিনেমা, তার ওপর মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক। হলমালিকরা বলছেন এ ধাঁচের সিনেমাগুলো চালিয়ে তারা আর্থিকভাবে লাভবান হন না। কিন্তু এই সিনেমাগুলোর সঙ্গে আমাদের দেশপ্রেম, মানবিক মূল্যবোধ জড়িত রয়েছে। শুধু বাণিজ্যিক সিনেমা নয়, এ সিনেমাগুলো চালানো তো পরিচালকদের দায়িত্ববোধের মধ্যেই পড়ে।”

তিনি আশা করছেন, মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক সিনেমাগুলো প্রদর্শনের ক্ষেত্রে সরকার আরও বেশি উদ্যোগী হবেন। তারা ‘বিশেষ ব্যবস্থায়’ এই সিনেমাগুলো প্রদর্শনের ব্যবস্থা নেবেন বলে মনে করছেন তিনি।
মান্নান হীরা জানালেন, সিনেমাটির প্রিমিয়ার শো হবে শিল্পকলা একাডেমিতে। হলমালিকরা সিনেমাটি প্রদর্শনে অপরাগতা জানালে তিনি জেলা শিল্পকলা একাডেমির বিশেষ সহযোগিতায় স্কুল-কলেজের কিশোরদের সিনেমাটি দেখাবেন।

মান্নান হীরা এর আগে ‘গরম ভাতের গল্প’ এবং ‘একাত্তরের রংপেন্সিল’ নামে দুইটি স্বল্পদৈর্ঘ্য শিশুতোষ চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছেন।

Online News

North Iowa is an awesome place and we wanted to help tell your story.

Everything