Tags » Biodiversity Conservation

কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরামের মেধাকচ্ছপিয়া জাতীয় উদ্যান পরিদর্শন।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরামের একটি প্রতিনিধি দল আজ মেধাকচ্ছপিয়া জাতীয় উদ্যান পরিদর্শন করেছে।

ফোরামের প্রধান পরিচালক মোঃ ইলিয়াছ মিয়া’র নেতৃত্বে অন্যান্যের মধ্যে মূখ্য সমন্বয়ক ফোরকান উদ্দিন,সমন্বয়ক(ফান্ড) রমজান আলী,বিশেষ প্রতিনিধি ছৈয়দুল করম,রেজাউল করিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিনিধি দলটি এ সময় উদ্যানের বিভিন্ন অংশ এবং গর্জনতলীর গর্জন গাছের পরিবেশগত সংকট পরিদর্শন করেন।
পরে প্রধান পরিচালক উদ্যান অফিস সংলগ্ন ট্রি একটিভিটিতে অংশগ্রহণ
করেন।

প্রচারে-
তাজিন হোসাইন
সহকারী সম্পাদক(প্রচার)
কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরাম।

The Journey Begins

Hotep!

Welcome and thanks for joining us! Live and direct from Mosi Oa Tunya aka Vic Falls. Which is situated on the northern boarder of Zimbabwe and Zambia, sharing the mighty Zambezi River. 52 more words

Ba'Ntu Yoga

আজ বিশ্ব জলাভূমি দিবস।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ

জীববৈচিত্র্যে পরিপূর্ণ জলাভূমি একটি প্রাকৃতিক সম্পদ। যা পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায়, জীবিকা নির্বাহ, চিত্তবিনোদন, পর্যটন শিল্প এবং অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
বিশ্বজুড়ে জলাভূমির সংরক্ষণ ও সুষ্ঠু ব্যবহারের ওপর বেসরকারি উদ্যোগে ১৯৬০ সাল থেকে বিভিন্ন আলোচনা শুরু হয়। ১৯৭১ সালে ২ ফেব্র“য়ারি ইরানের ‘রামসার’ শহরে জলাভূমি বিষয়ক একটি আন্তর্জাতিক সনদ অর্জনের মাধ্যমে ১৯৭১ সালের পর থেকে সারা বিশ্বে এই দিবসটি পালন করা হচ্ছে। বর্তমানে এই সনদকে ১৬৮টি দেশ স্বীকৃতি প্রদান করেছে। বাংলাদেশ সরকার উক্ত সনদে ১৯৯২ সালের ২১ সেপ্টেম্বর অনুসাক্ষরের মধ্যে দিয়ে একে স্বীকৃতি প্রদান করে। এ বছর বিশ্ব জলাভূমি দিবসের প্রতিপাদ্য বিষয় নির্ধারণ করা হয়েছে দুর্যোগের ঝুঁকি কমানোর জন্য জলাভূমি ”।

বিশ্ব জলাভূমি দিবস উপলক্ষে এক বিবৃতি প্রদান করেছে কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরাম।

এক বিবৃতিতে ফোরামের প্রধান পরিচালক মোঃ ইলিয়াছ মিয়া বলেন জলাভূমি সংরক্ষণ সময়ের দাবি।বিশ্বের সকল মানুষের বেঁচে থাকার জন্য এর বিকল্প নেই।তিনি সবাইকে জলয়ভূমি সংরক্ষণে এগিয়ে আসার জন্য আহবান জানান।

প্রচারে-
ফাহিমু্ল আলম
সম্পাদক(মিডিয়া)
কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরাম

হোটেল শৈবাল পিপিপি'র অধীনে না দেওয়ার আহবান কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরামের।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ
কক্সবাজার শহরের অন্যতম পর্যটন আকর্ষণ পর্যটন কর্পোরেশন কতৃক পরিচালিত হোটেল শৈবালকে পিপিপি’র আওতাধীনে লীজ না দেওয়ার জন্য আহবান জানিয়েছে কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরাম।

এক বিবৃতিতে ফোরামের প্রধান পরিচালক মোঃ ইলিয়াছ মিয়া এ আহবান জানান।

তিনিববলেন কক্সবাজার এর পরিবেশ বান্ধবন পর্যটন এর একটি আদর্শ উদাহরণ হোটেল শৈবাল।এটিকে কোন মতেই বেসরকারি খাতে ছেড়ে দেওয়া যায়না।তিনি আরো বলেন টেকসই উন্নয়নের জন্য ইকো-ট্যুরিজমের বিকল্প নেই।হোটেল শৈবাল কে তাই অধিকতর সংস্কার করার তাগিদ দেন তিনি।

প্রচারে-
মাহবুবুর রহমান
সহযোগী সম্পাদক(মিডিয়া)
কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরাম।

আন্তর্জাতিক সংস্থার চূড়ান্ত সদস্যপদ মনোনয়নে কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরাম।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ
অস্ট্রিয়া ভিত্তিক বন ও পরিবেশ সংরক্ষণ এবং গবেষণার আন্তর্জাতিক সংস্থা International Union of Forest Research Organization (IUFRO) এর চূড়ান্ত মেম্বারশীপে মনোনীত হয়েছে CEHRDF.।

আজ এক মেইলে সংস্থাটির ডাটাবেজ কর্মকর্তা সিলভিয়া পেইজ প্রধান পরিচালক মোঃ ইলিয়াছ মিয়া কে এ তথ্য জানান।

অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় সংস্থাটির সদর দপ্তরে ত্রৈমাসিক সভায় এ বিষয়ে সিদ্ভান্ত হয়।

এ সফলতার জন্য ফোরামের প্রধান পরিচালক ফোরামের উপদেষ্টামন্ডলী,পরিচালনা পর্ষদ,সমন্বয়ক,সেক্রেটারিয়েট, সদস্য,প্রতিনিধিবৃন্দ ও শুভাকাঙ্খীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

প্রচারে-
ইমরান মাহমুদ
পরিচালক(আন্তর্জাতিক)
কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরাম।

কক্সবাজার পিটি স্কুল মাঠ দখল করে স্থাপনা নির্মাণের তীব্র প্রতিবাদ কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরামের।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ
কক্সবাজার শহরের পিটি স্কুল মাঠ দখল করে স্থাপনা নির্মাণের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরাম।

আজ এক বিবৃতিতে ফোরামের প্রধান পরিচালক মোঃ ইলিয়াছ মিয়া এ নিন্দা জানান।

তিনি বলেন পর্যটন নগরী কক্সবাজারের অন্যতম একটি খেলার মাঠ কক্সবাজার পিটি স্কুল এবং জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর কার্যালয় সংলগ্ন মাঠটি।
কক্সবাজার শহরের বেশিরভাগ শিক্ষার্থীরা এখানে খেলে থাকে।শহরে দ্বিতীয় কোন পার্ক,খেলার মাঠ ও নেই।এমতাবস্থায় এখানে মাঠ দখল করে টিচার্স লিডারশীপ ট্রেনিং সেন্টার করার কেন যৌক্তিকতা নেই

তিনি অবিলম্বে মাঠ দখল করে এই অবৈধ স্থাপনা না করার জন্য এবং অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার জন্য আহবান জানান।
তিনি এ বিষয়ে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন,উন্নয়ন কতৃপক্ষ এবং শিক্ষা অধিদপ্তরকে আহবান জানান।

প্রচারে-
ফাহিমুল আলম
সম্পাদক(মিডিয়া)
কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরাম

যশোর মহাসড়কের গাছ কাটার সিদ্বান্তের প্রতিবাদ কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরামের।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ
যশোর-কলকাতা মহাসড়কের বাংলাদেশ অংশের ২৩১২ টি শতবর্ষী গাছ কেটে চার লেন মহাসড়ক করার পরিকল্পনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরাম।

এক বিবৃতিতে এ আহবান জানান কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরামের প্রধান পরিচালক মোঃ ইলিয়াছ মিয়া।তিনি বলেন যশোর রোডের গাছগুলোর বয়স একশ বছরের ও বেশি। এর সাথে জড়িত রয়েছে স্থানীয় মানুষের আবেগ-অনুভূতি।পাশাপাশি গাছগুলো পরিবেশ রক্ষায় পালন করছে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।

তিনি আরো বলেন চার লেন মহাসড়ক করার জন্য রাস্তার উভয়পাশে প্রায় ৫০ ফুট জায়গা রয়েছে।তিনি স্থানীয় কতৃপক্ষ,জেলা পরিষদ,জেলা প্রশাসন এবং সওজ কতৃপক্ষের প্রতি এ ব্যাপারে বিকল্প চিন্তা করার আহবান জানান।টেকসই উন্নয়নের জন্য বৃক্ষের বিকল্প কিছু নেই বলে তিনি হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

এ ব্যাপারে মাননীয় যোগাযোগ মন্ত্রী এবং প্রধানমমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

প্রচারে-
মাহবুবুর রহমান
সহযোগী সম্পাদক (মিডিয়া)
কক্সবাজার পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন ফোরাম।