Tags » Movie Time..

The Box In Which I Habitate

For a while now people have been asking me, “Matt when are you going to show us your new apartment?” “Matt when are you going to start posting again?” “Matt when are you going to stop being such a reclusive asshole?” My response to which is, wow that got hostile there at the end. 202 more words

First non-skincare and makeup post! Korea box - snack edition!

I have to admit I love subscription boxes! And this one is especially fun for me because I am adopted from Korea – but I have never been to Korea other than when I was a baby so I don’t know much about the country. 487 more words

Having Fun With Friends

5 Ways to Enjoy the Day Even When it isn't Sunny

Desde que Agosto começou, que o tempo não tem estado propriamente estável, um dia está muito sol e no outro parece que vai começar a chover. 474 more words

Fashion

নির্বাসিত (Bengali movie)

আমি ভালো নেই, তুমি ভালো থেকো, প্রিয় দে…শ… – নির্বাসিত ছবির টেলারের এই কথাটা যেন হৃদয় ছুঁয়ে গেল, হৃদয় মুচড়ে দিল, এক হালকা ব্যথা যেন জেগে উঠল। এবং জানি, যারা বহুদিন দেশ ছাড়া তাদেরকেও এই কথাটা ছুঁয়ে যেতে বাধ্য।

নির্বাসিত ছবিটি রিলিজ হতে চলেছে। টেলার দেখে একটা ছবিকে কতটুকুই বা জানা যায়, বোঝা যায়, ছবিটা নিয়ে ভাবা যায়, লেখা যায়? কিন্তু, যখন টেলারই চেতনাকে নাড়া দিয়ে যায়, ভাবায় – তখন লিখতে ইচ্ছে করে বৈ কি।

কখনো কোন দেশ কোন বিশেষ এক মানুষকে চায় না, কেন চায় না, কে চায় না তাকে, সে মানুষটি নিজেও তা জানে না। আবার, অনেকে স্বেচ্ছায় দেশ ছাড়ে – সে যে কারনেই হোক, কিন্তু, মনে হয়, বিদেশে নির্বাসিত ও স্বেচ্ছায় দেশছাড়া মানুষ –  দু’জনেরই মনের গহন অনুভূতি গুলো কোথাও যেন অনেকটা একই থাকে। একই ব্যকুলতা, একই রকম নস্টালজিয়া, একই রকম একাকীত্ব।

সুইডেনে যখন গিয়েছিলাম, অক্টোবরের ধূসর শীতে স্টকহোম ও গথেনবার্গের আশেপাশের নির্জন দ্বীপ গুলোয় সত্যিই কেমন এক উদাসীন নির্জন একাকীত্ব জড়িয়ে ছিল, উত্তরের সমুদ্রের ঢেউয়ের পাড়ে এসে আছড়ে পড়ার মধ্যে জড়িয়ে ছিল এক উথালি পাথালি ব্যকুলতা। আর এমন এক নির্জনতায়, প্রকৃতির উদাসীন সৌন্দর্যের দেশে এসে নিজের সঙ্গে মুখোমুখি হয়ে, নিজের একাকী নির্জনতার দিকে তাকালে, সত্যিই মনে হয় – আমি ভালো নেই, তুমি ভালো থেকো, প্রিয় দে…শ…।

মানুষের কাছে দেশ কি এক ভৌগলিক পরিসীমা? নাকি এক অভ্যেস, এক মুক্ত স্বাধীন দৃষ্টি ভঙ্গি, নাকি চেনা লোকজন, চেনা পাড়া, চেনা গলিপথ, চেনা সৌরভ, চেনা প্রার্থীকে ভোট দেওয়ার অধিকার – দেশ কি?

ছেলেবেলায় বাড়ীর রান্নার লোককে দেখতাম ছুটি নিয়ে দেশে যেত। তার কাছে দেশ মানে ছিল তার অতি চেনা গ্রামের চেনা পরিধি টুকু। এমনকি, নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বুঝেছি, চেনা জায়গা বদলে প্রাণীদেরও খুব কষ্ট হয়, আবার সেই চেনা জায়গায় ফিরে গেলে দেখা গেছে সে আবার খুশী হয়েছে।

আমার মনে হয়, আবার দীর্ঘদিন বিদেশে থাকলে এই প্রশ্ন ও উত্তরটা কেমন যেন গুলিয়ে যায়। তখন বিদেশের কাজ, ব্যস্ত জীবন যাপন ও চেনা পরিধির মধ্যে থেকে থেকে দিব্যি নিজের এক comfort zone খুঁজে নিতে অসুবিধা হয় না, দিব্যি দিন কাটিয়ে দেওয়া যায়, মানিয়ে নেওয়া যায়, সিস্টেমের স্রোতে গা ভাসিয়ে দেওয়া যায়।

কিন্তু, অবচেতন মনের কোথাও যেন শিকড় ছেঁড়ার এক গোপন চিনচিনে ব্যথা, একফালি একাকীত্ব চাপা পড়ে থাকে। বয়স যতই বাড়ে সেই গোপন ব্যথারা মাথাচাড়া দিতে চায় – তখন ‘দেশ’ নামক এক মিষ্টি অনুভূতিকে মিস করতে শুরু করি, আর সেই প্রশ্ন গুলোর উত্তর খোঁজা শুরু হয়। আর সেই জন্যেই আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করি ‘নির্বাসিত’ ছবির জন্যে।

Bangla Blog

লাইফ অফ পাই – মানুষ কেন মানুষ? (Life of Pi)

মানুষ ভালোবাসে গল্প শুনতে, শুধু শুনতে নয়, গল্প বলতেও ভালোবাসে। আর মানুষ সেই গল্প শুনেই শুধু থেমে থাকে না – এক কল্পনার জগত তৈরি করে সেই জগতে থাকতেও ভালোবাসে, বিশ্বাস করতে ভালোবাসে কিংবা বিশ্বাস করতে চায় – তাই বোধহয় মানুষকে নানা ধর্মের নানা ধর্ম গ্রন্থের গল্প শুনিয়ে ধর্ম বিশ্বাসী করে তোলা যায়, ধর্মের নামে ভাগাভাগি করে দেওয়া যায় – অন্য কোন প্রাণীকে গল্প শুনিয়ে কিছুতেই ভাগ করা যায় না, গল্প শুনিয়ে তাদের আবেগ বা চিন্তাকে নাড়া দেওয়া যায় না, কিন্তু মানুষকে গল্প শুনিয়েই সুখী, দুখী করে দেওয়া যায়, অনুভূতি জাগ্রত করে দেওয়া যায়, তাই, মানুষ গল্পে বিশ্বাস করে। আর মানুষের সেই আশ্চর্য বিশ্বাস করার ক্ষমতা, ফ্যান্টাসি তৈরি করার ক্ষমতা, গল্প বলার ক্ষমতা – সব দিয়েই মানুষ অন্যান্য প্রাণীকুলের চেয়ে সম্পূর্ণ আলাদা হয়ে বিশাল এই সভ্যতা গড়ে তুলেছে।

লাইফ অফ পাই – চলচিত্রটিও যেন মানুষের সেই বিশ্বাস করার ক্ষমতা নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা করেছে। এই চলচিত্রের গল্পের নায়ক তাই, ঈশ্বর বিশ্বাসী হয়ে ওঠার জন্যে কখনো ক্রিশ্চান ধর্ম মতে ব্যপ্টাইজ হতে চাইছে, কখনো পাঁচ বেলা নামাজ পড়ে ইসলাম ধর্মের মূল কথা জানতে চাইছে, আবার কখনো বিষ্ণুর কথাও জানতে চাইছে। এই চলচিত্র যেন ঠিক এক চলচিত্র নয় – এক গভীর আত্মবোধ। মানুষের বিশ্বাস করার ক্ষমতাকে যাচাই করার চলচিত্র।

কেন জানি না, শহরের ভিড়, যান বাহনের আওয়াজ, যান জট, জীবন ধারণের জন্যে দৈনন্দিন অস্থিরতা, গতি – সব কিছুকে একপাশে সরিয়ে যখন ‘লাইফ অফ পাই’ সিনেমাটি দেখেছিলাম – এক অদ্ভুত নির্জনতা, প্রশান্তি অনুভব করেছিলাম।

এক অন্য জগতের গল্প, সত্যি কারের এক ফ্যান্টাসি তৈরি হয়েছিল পর্দায়। বিশ্বাস করতে ইচ্ছে হয়েছিল, গল্পের নায়ক সত্যিই বাঘের সঙ্গে সহাবস্থান করে মাঝ সমুদ্রে দিন কাটিয়েছিল, সত্যিই মাঝ সমুদ্রে এক দ্বীপে গিয়ে নায়ক ও বাঘের নৌকো ঠেকেছিল – যে দ্বীপের গাছপালা সন্ধ্যা নামলেই মাংসাশী হয়ে যায়।

আবার শেষে, সন্দেহও জেগেছিল – সত্যিই কি সে বাঘের সঙ্গে এক নৌকোয় ছিল। নাকি পুরোটাই তার তৈরি গল্প, তার বেঁচে থাকার গল্প। কিংবা, এও হতে পারে, ভয়ংকরের মুখোমুখি থাকলে মানুষের বাঁচার ইচ্ছে আরও প্রবল হয়, বেঁচে থাকার লড়াইটাও তাই সে মনে প্রানে করে চলে – জীবন মানেও তো তাই – এক ধুরন্ধর শক্তিশালী রাগী বাঘকে ক্রমাগত পোষ মানিয়ে চলার চেষ্টা। আবার সেই ভয়ংকর বাঘের জন্যেই বেঁচে থাকা, বাঘকেই ভালোবাসা – যা কিনা নায়ক বুঝেছিল, সে বুঝেছিল, বাঘটি না থাকলে মাঝ সমুদ্রে হয়তো সে বেঁচে থাকতেই পারতো না, মাঝ সমুদ্রে বাঘটি ওকে বাঁচার আশা যুগিয়েছিল, বাঘ মানুষে এক অদ্ভুত বন্ধুত্ব তৈরি হয়েছিল।

গল্পের শেষে মনে হল, অনেকটা ঠিক, সেই সৃষ্টির প্রথম সময়ে যদি একটাই মানুষ থাকতো, আর সে যদি দু’টো গল্প বলতো – যে গল্পটা সবচেয়ে বেশী চাঞ্চল্যকর তাই হয়তো মানুষ বিশ্বাস করতো। এই ক্ষেত্রেও তাই হয়েছে – মাঝ সমুদ্রে ঘটে যাওয়া ঘটনার সাক্ষী তো কেউ ছিল না, বাঘটি ছিল, কিন্তু, সে তো আর গল্প বলবে না। মানুষকেই বলতে হবে – আর বিশ্বাস অবিশ্বাস করার অধিকার না হয় ছেড়ে দেওয়া হোক মানুষেরই উপর।

Bangla Blog

Rang De Basanti: A Review

Rang de basanti was recommended to me by a cousin who insisted that I watch it and she was sure that I’ll like it. Guess what, she wasn’t wrong. 586 more words

AmirKhan

The longest ride | movie time

Nicholas Sparks é um romântico por natureza, é profundo, conhece o que faz palpitar o coração das pessoas. Eu, como gosto imenso de ler, não podia deixar de ler algumas das obras deste grande senhor! 216 more words